বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২

| মাঘ ৬ ১৪২৮

মহানগর নিউজ :: Mohanagar News

প্রকাশের সময়:
১৪:৪৩, ১১ জানুয়ারি ২০২২

মহানগর ডেস্ক

করোনার পর শরীরে দুর্বলতা থাকছে, কী করবেন

প্রকাশের সময়: ১৪:৪৩, ১১ জানুয়ারি ২০২২

মহানগর ডেস্ক

করোনার পর শরীরে দুর্বলতা থাকছে, কী করবেন

করোনার থেকে সুস্থ হওয়ার পরও দরকার পুষ্টিকর খাবার

আবারও বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। দু-তিন দিন সর্দি-জ্বরের মতো সাধারণ কিছু মৃদু উপসর্গ নিয়ে লড়াই করছেন করোনার সঙ্গে। তারপর আবার চাঙ্গা হয়ে কাজে বসে পড়ছেন। কিন্তু পুরোপুরি কি সুস্থ হয়ে যাচ্ছেন সকলে? যাদের শরীরে এমনিতেই কোনও রকম দীর্ঘ রোগ বা অন্য কোনও শারীরিক সমস্যা ছিল, তাদের এ বারও কোভিড সংক্রমণ যথেষ্ট ভোগাচ্ছে।

যাদের টিকা দেওয়া সম্পূর্ণ হয়নি, তাদেরও শরীর অসুস্থ হচ্ছে বেশি। এমনকি, বাকিদের ক্ষেত্রেও গায়ে ব্যথা এবং দুর্বলতা থেকেই যাচ্ছে। সেটি অবহেলা করা একদমই ঠিক নয় বলে মনে করেন বেশিরভাগ চিকিৎসক। তাই করোনার পর কিছু জিনিস অবশ্যই মেনে চলতে হবে। জেনে নিন সেগুলি কী।

বিশ্রাম নিন

করোনার পর ক্লান্তি থেকে যায় বহু দিন। তাই বিশ্রামের প্রয়োজন। খুব তাড়াতাড়ি জোর করে অনেক পরিশ্রমের কাজ করার চেষ্টা করবেন না। একটু জিরিয়ে নিন। ভাল করে টানা ঘুম দিন। রোগমুক্ত হওয়ার পরও অন্তত এক সপ্তাহ সম্পূর্ণ বিশ্রাম করাই ভাল। এতে আরও দ্রুত স্বাভাবিক জীবন ফিরে পাবেন।

পুষ্টিকর খাবার

কোভিডের পর কী খেলে শরীরে বল ফিরে পাবেন, এই নিয়ে নানা রকম তথ্য নেটমাধ্যমে পেয়ে যাবেন। কিন্তু আপনার যদি কোভিডের পাশাপাশি অন্য কোনও দীর্ঘকালীন অসুখও থাকে, তা হলে অবশ্যই একজন পুষ্টিবিদের পরামর্শ নিয়ে রোজকার ডায়েট ঠিক করুন। এমনিতে এই সময় প্রোটিন বেশি আছে, এমন খাবার বেশি খাওয়া উচিত। পর্যাপ্ত পরিমাণে জল সঙ্গে আবশ্যিক।

ব্যায়াম

প্রত্যেক দিন ধীরে ধীরে ব্যায়াম করা প্রয়োজন। তাতে শরীরে বল ফিরে পেতে সাহায্য করবে। কিন্তু নিজের শরীর বুঝে ব্যায়াম করুন। খুব বেশি ক্লান্ত লাগলে বা মাথা ঘুরলে আরও বিশ্রাম নিন। নিঃশ্বাসের ব্যায়াম করতে পারেন প্রত্যেক দিন।

রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা মাপুন

কোভিড সেরে যাওয়ার বেশ কিছু দিন পরও হঠাৎ রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা কমে যেতে পারে। তাই নিয়মিত মেপে দেখুন।

স্মৃতিশক্তির খেলা

কয়েকটি সহজ স্মৃতিশক্তির খেলা খেলুন, বা ধাঁধার সমাধান করুন। পাজ্‌ল খেলতে পারেন। কোভিডের কারণে মস্তিষ্কের স্বাভাবিক চলনে সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই যাতে মস্তিষ্ক সুস্থ থাকে, সেটা খেয়াল রাখা প্রয়োজন।
 

কেডি